অনলাইনে টাকা আয়কম্পিউটারটিপস এন্ড ট্রিকস

ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো 2022। ফ্রিল্যান্সিং কি?

Rate this post

ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো 2022? ফ্রিল্যান্সিং কি? এই প্রশ্নগুলোর উত্তর খুঁজতেই হয়তো আপনি পোস্টটি পড়ছেন। এছাড়াও হয়তো ভাবছেন, ফ্রিল্যান্সিং কি মোবাইলে করা যায়? অথবা ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ সমূহ কী?

তাই বিডি ব্লগ টাইম এর আজকের ব্লগ পোস্টে আলোচনা করবো কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং শিখবো 2022? ফ্রিল্যান্স চাকরি, ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ সমূহ এবং কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং একাউন্ট খুলব? ইত্যাদি সম্পর্কে। তাই ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ুন। অথবা নিচের Table of Content থেকে প্রয়োজনীয় অংশ পড়ে নিন।

সূচিপত্র

ফ্রিল্যান্সিং কি?

ফ্রিল্যান্সিং হলো অন্য কারো দ্বারা নিযুক্ত না হয়ে স্বাধীনভাবে কাজ করা যেখানে ফ্রিল্যান্সাররা স্ব-নিযুক্ত এবং প্রায়শই স্বাধীন কর্মী হিসেবে নিজেদের পরিচয় দিয়ে থাকে।

তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে এসে অনেকেই এখন কর্মক্ষেত্রে গিয়ে কাজ করার ব্যাপারটি ভুলেই গিয়েছে। ঘরে বসেই অফিসের কাজ করে পারিশ্রমিক নিচ্ছে মাস শেষে অথবা কাজ শেষে।

ফ্রিল্যান্সারদের অন্যান্য কোম্পানি দ্বারা স্বল্প-মেয়াদী বা দীর্ঘ মেয়াদের ভিত্তিতে নিয়োগ করা হয়। কিন্তু তারা দীর্ঘসময় কোনো নির্দিষ্ট কোম্পানি বা ক্লায়েন্টের প্রতি দায়বদ্ধ থাকে না।

 

ফ্রিল্যান্সিং কি মোবাইলে করা যায়? ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো

 

হ্যাঁ। ফ্রিল্যান্সিং মোবাইলে করা যায়।

অনেকেই ভাবেন, ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো? ফ্রিল্যান্সিং শিখতে হয়তো কম্পিউটারের প্রয়োজন হবে! মোবাইলে ফ্রিল্যান্সিং শেখা অসম্ভব! ইত্যাদি। এ ধারণাগুলো সম্পূর্ণই ভুল। অবশ্যই ফ্রিল্যান্সিং মোবাইলে করা যায়।

‘ফ্রিল্যান্সিং কি মোবাইলে করা যায়?’ উত্তরটি জানার জন্য জানতে হবে ‘ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ সমূহ কি কি?’ ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ সমূহ নিয়ে এই পোস্টের শেষের দিকে বিস্তারিত আলোচনা থাকবে।

এখন আসি, মোবাইলে ফ্রিল্যান্সিং শেখা প্রসঙ্গে। আপনি আপনার মোবাইল ফোন দিয়ে ক্লায়েন্টদের জন্য আর্টিকেল লেখা, ব্লগ পোস্ট, ওয়েবসাইটের বিষয়বস্তু, ইবুক, সাধারণ লোগো ডিজাইন, পোস্টার ডিজাইন ইত্যাদি করতে পারেন।

আপনার যা দরকার তা হলো সৃজনশীলতা, দ্রুত টাইপিং স্কিল এবং লেখালেখির কাজ করার কয়েকটি অ্যাপ। সবচেয়ে ভালো দিক হল এই অ্যাপগুলির বেশিরভাগই বিনামূল্যে এবং Google এবং Apple Playstore উভয়েই পাওয়া যায়।

মোবাইলে আজকাল কাজ করার ক্ষেত্রর বিস্তার ঘটেছে। কেউ চাইলে বিভিন্ন টুলস ব্যাবহার করে প্রোগ্রামিং ও করে ফেলতে পারেন, মোবাইলে। আবার ওয়েবসাইট তৈরি করাটা মোবাইলে আজকাল সাধারণ একটি সাধারণ ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং করা যায়।

মোবাইল দিয়ে টাকা টাকা ইনকাম করতে ক্লিক করুন: মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম ২০২১। ঘরে বসে আয় করুন সহজে

ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো 2022

 

প্রথমত, ফ্রিল্যান্সিং শেখা আমি মনে করি আহামরি কঠিন কোনো কাজ না। প্রথম প্রথম সব কাজই কঠিন মনে হলেও, আস্তে আস্তে অনুশীলন ও অভিজ্ঞতার মাধ্যমে সব ঠিক হয়ে যায়। এখন বলবো ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো এবং ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করার উপায় নিয়ে।

ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো? ১৩ টি ধাপে ফ্রিল্যান্সিং শিখুন

  1. লক্ষ নির্ধারণ

  2. দক্ষতা নির্বাচন

  3. নিজের দক্ষতা অনুযায়ী কাজ নির্ধারণ 

  4. কাজ নির্ধারণ অনুযায়ী দক্ষতা অর্জন

  5. মার্কেটপ্লেস নির্বাচন করা

  6. ক্লায়েন্টেদের টার্গেট করে কাজ করা

  7. ফ্রিল্যান্সিং কাজের ওপর কোর্স করা

  8. ভিডিও টিওটোরিয়াল থেকে ফ্রিল্যান্সিং শিখুন

  9. ইন্টার্নিশিপ করা

  10. দক্ষতা অনুযায়ী পোর্টফোলিও তৈরি

  11. বিড করা অর্থাৎ ফ্রিল্যান্স চাকরির আবেদন করা শিখুন

  12. যত সম্ভব, দক্ষতা বৃদ্ধি করুন

  13. ধৈর্যের সাথে কাজ করা

ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো? এ প্রশ্নের আলোকে উপরোক্ত ধাপগুলো বর্ণিত হলো:

 

১. লক্ষ নির্ধারণ

 

শুধুমাত্র ফ্রিল্যান্সিং শেখা না। যেকোনো লক্ষ্যে সফলভাবে পৌঁছাতে চাইলেই প্রথমে আপনাকে লক্ষ নির্ধারণ করতে হবে।

So, ফ্রিল্যান্সিং শেখার জন্য লক্ষ নির্ধারণ বলতে, আপনি কোন বিষয়টি নিয়ে কাজ করতে চান, ফ্রিল্যান্সিং এর কোন বিষয়ে আপনার আগ্রহ আছে, কোন বিষয়ে ক্লায়েন্টের চাহিদা বেশি ইত্যাদি বিবেচনা করে লক্ষ নির্ধারণ করুন।

আরো জানুন: এড দেখে টাকা ইনকাম করে বিকাশে পেমেন্ট নিন 2022 – অনলাইনে আয়

২. দক্ষতা নির্বাচন (ফ্রিল্যান্সিং শিখবেন যেভাবে)

 

ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো? কথাটি বলতে গেলে সম্পূর্ণ আপনার দক্ষতা অর্জনকেই নির্দেশ করে।

ফ্রিল্যান্সিং এর বেশ কয়েকটি ক্যাটাগরির মধ্যে আপনি যে কাজের প্রতি আপনার লক্ষ নির্ধারণ করেছেন, সেই বিষয়ে দক্ষতা বাড়িয়ে তুলুন।

যেমন: আপনি কন্টেন্ট রাইটিং নিয়ে কাজ করতে চান। কন্টেন্ট রাইটিং এর প্রতি বিশেষ এক ধরনের আগ্রহও রয়েছে আপনার, এমনকি কিছুটা অভিজ্ঞতাও আছে লেখালেখি করার। আর ফ্রিল্যান্স চাকরি সাইটে কন্টেন্ট রাইটিং এর বেশ কদর থাকায় আপনি চাইলেই আপিনার ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার ভালোভাবে গড়ে তুলতে কন্টেন্ট রাইটিং এর দক্ষতাকে বাড়িয়ে নিতে পারেন।

 

৩. নিজের দক্ষতা অনুযায়ী কাজ নির্ধারণ

 

ধরুন আপনি ভালো লোগো ডিজাইন করতে পারেন, কিংবা গ্রাফিক্স ডিজাইনিং বিষয়ে আপনার বেশ দক্ষতা রয়েছে। অপরদিকে কন্টেন্ট রাইটিং বা ওয়েব ডেভেলপিং বিষয়ে আপনার কোনো দক্ষতা বা অভিজ্ঞতা নাও থাকতে পারে।

সেক্ষেত্রে কন্টেন্ট রাইটিং বা ওয়েব ডেভেলপিং এ ভালো কদর থাকায়, আপনি জোর করে সেই কাজে নিজেকে নিযুক্ত করলে শেষপর্যন্ত বিফল হয়ে খালি হাতে তো ফিরতেই হবে!

So, নিজের দক্ষতাকে প্রথমে প্রাধান্য দিন। কেননা জোর করে কোনোকিছু হয় না।

 

৪. কাজ নির্ধারণ অনুযায়ী দক্ষতা অর্জন

 

‘ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো’ প্রশ্নটি সম্পর্কে যারা সম্পূর্ণ নতুনভাবে পরিচিত, তাদের জন্য বিষটি।

অর্থাৎ আপনি হয়তো কেবলই ফ্রিল্যান্স চাকরি বা ফ্রিল্যান্সিং ইনকাম সম্পর্কে ভাবছেন। এই সাইটে আপনি নতুন হলে। প্রথমে ফ্রিল্যান্সিং এর কাজগুলো ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করুন।

তারপর দেখুন, কোন কাজটি আপনি করতে পারবেন। সেই অনুযায়ী দক্ষতা বাড়ান। হয়তো ভাবতে পারেন, “ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখব?”

ইন্টারনেটের এই যুগে এসে এই প্রশ্নটা অবান্তর বলে আমি মনে করি। ইন্টারনেটে অনেক কোর্স বিনামূল্যে বা স্বল্পমূল্যে বিক্রি হচ্ছে। আবার ইউটিউব তো আছেই।

 

৫. মার্কেটপ্লেস নির্বাচন করা। ফ্রিল্যান্সিং শিখুন

 

বর্তমানে ফ্রিল্যান্সিং শেখার জনপ্রিয় সাইটগুলো হলো:

But, সবচেয়ে জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং সাইট হলো: Upwork.

Upwork বর্তমানে ‘সান্তা ক্লারা’ এবং ‘সান ফ্রান্সিসকো, ক্যালিফোর্নিয়ায়’ অবস্থিত।  2017 সালে, Upwork এর বারো মিলিয়নেরও বেশি নিবন্ধিত ফ্রিল্যান্সার এবং পাঁচ মিলিয়ন নিবন্ধিত ক্লায়েন্ট ছিল।

Therefore, আপনি চাইলেই আপওয়ার্ক এ একাউন্ট খুলে ফ্রিল্যান্সিং শুরু করে দিতে পারেন।

ইংরেজি শেখার সহজ উপায় জানতে ক্লিক করুন: ইংরেজি শেখার সহজ উপায়। ৩০ দিনে ইংরেজিতে দক্ষ হোন

৬. ক্লায়েন্টেদের টার্গেট করে কাজ করা

 

এটি মূলত একটু এডভান্স লেভেলের ফ্রিল্যান্সারদের জন্য প্রোযোজ্য। কিছু ক্লায়েন্টদের টার্গেট করলে ফ্রিল্যান্স চাকরি পাওয়াটা কিছুটা সহজ হয়ে যায়। 

কেননা আপনি কোন ক্লায়েন্টের কাজের হিস্টোরি, পেমেন্ট মেথড, ফ্রিল্যান্সারদের তার প্রতি আস্থা, তার কর্মীদের অভিজ্ঞতা ইত্যাদি দেখে তার সম্পর্কে সম্যক ধারণা পেয়ে যাবেন।

তখন তার করানো কাজগুলোতে আপনি দক্ষ হলে তার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন, কিংবা আপনার কাজের ধরণ তাকে দেখাতে পারেন।

এভাবে ক্লায়েন্ট টার্গেট করা ফ্রিল্যান্সিং এর গুরুত্বপূর্ণ একটি ধাপ।

 আরো জানুন: ব্লগিং করে টাকা আয়

৭. ফ্রিল্যান্সিং কাজের ওপর কোর্স করা

 

অনেক পরামর্শ দেওয়ার পর, এখন আসি মূল কথায়। অর্থাৎ, “ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো 2022

ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো? প্রশ্নটির উত্তর আপনি হয়তো পেয়ে গেছেন।

অনলাইনে কোর্স করার মাধ্যমে ফ্রিল্যান্সিং শিখুন: ফ্রিল্যান্সিং কোর্স ফ্রি: Free Freelancing Course Download

ফ্রিল্যান্সিং কোর্স ফ্রি

বিভিন্ন সাইট বিনামূল্যে আপনাকে ফ্রিল্যান্সিং শেখার কোর্স প্রদান কপ্রে থাকবে।

কিছু কোর্স হলো:

আবার স্বল্পমূল্যেও অনেকে ফ্রিল্যান্সিং শেখার কোর্স বিতরণ করে। 

কিছু কোর্স হলো:

 

৮. ভিডিও টিওটোরিয়াল থেকে ফ্রিল্যান্সিং শিখুন

 

ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো?’

প্রশ্নটির যথার্থ উত্তর হলো: আপনার কাছে থাকা মোবাইল ফোন, ল্যাপটপ বা কম্পিউটার দিয়ে খুব সহজেই ইউটিউব ভিডিও দেখে দেখে ফ্রিল্যান্সিং শিখুন।

কথাটি আপনার কাছে অবাক লাগলেও সত্যি যে, আজকাল ইউটিউবে পাওয়া যায় না এমন কিছুই নেই। আর বিনামূল্যে অনেক ভালো জিনিসও পাওয়া যায় ইউটিউবে।

So, আপনার কাঙ্খিত দক্ষতা ও লক্ষ্যকে সামনে রেখে নির্ধারিত বিষয়ের দক্ষতা বাড়িয়ে নিন ইউটিউবের ভালো চ্যানেলগুলোর ভিডিও দেখে।

নিচে আমি কিছু ইউটিউব চ্যানেলের লিংক দিয়ে দিচ্ছি। যেখান থেকে খুব সহজেই আপিনারা খুব সহজেই ঘরে বসে ফ্রিল্যান্সিং শিখতে পারবেন।

ইংরেজিতে ফ্রিল্যান্সিং শেখার ইউটিউব চ্যানেল:

বাংলায় ফ্রিল্যান্সিং শেখার ইউটিউব চ্যানেল:

হিন্দিতে ফ্রিল্যান্সিং শেখার ইউটিউব চ্যানেল:

 

৯. ইন্টার্নিশিপ করুন। ফ্রিল্যান্সিং করুন

 

ফ্রিল্যান্সিং শুরু করার আগে নিজেকে যাচাই করুন।

নিজের অর্জিত দক্ষতাগুলো সম্পর্কে জ্ঞান অর্জনের পর সেই দক্ষতার ওপর কিছু কাজের উদাহরণ আপনার ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসের পোর্টফোলিওতে প্রদর্শন করুন।

এতে আপনার প্রতি আপনার ক্লায়েন্টের আস্থা আরো বেড়ে যাবে এবং কাজ পাওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যাবে।

কম্পিউটার শিখতে ক্লিক করুন: কম্পিউটার শেখার সহজ উপায় – কীভাবে দক্ষ হবেন কম্পিউটারে

কিভাবে কম্পিউটার চালাতে হয় – বেসিক কম্পিউটার ধারণা

 

১০. দক্ষতা অনুযায়ী পোর্টফোলিও তৈরি (ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো)

 

ফ্রিল্যান্সিং শেখা হয়ে গেলে প্রথমেই মার্কেটপ্লেসগুলোতে গিয়ে বিড (ফ্রিল্যান্স চাকরির আবেদনকে বিড বলে।) করা শুরু করলেই কাজ পাবেন না।

Firstly, জব পোস্টগুলো অনেক বেশি ঘাটাঘাটি করতে হবে। এর মাধ্যমে ক্লায়েন্ট কি চাচ্ছে, তা খুব সহজেই বুঝতে পারবেন। এভাবে আগাতে পারেন।

Then, মূল কথা, আপনার পূর্বের কোনো কাজের স্যাম্পল বা আপনার করা প্রাসঙ্গিক কোনো কাজের উদাহরণ আপনার একাউন্টের পোর্টফোলিওতে যুক্ত করুন।

যাতে ক্লায়েন্ট আপনার কাজের ধরণ খুব সহজেই বুঝতে পারে। 

 

১১. বিড করা অর্থাৎ ফ্রিল্যান্স চাকরির আবেদন করা শিখুন

 

আগেই বলেছি, ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ারে ফ্রিল্যান্স চাকরির আবেদনকে ‘বিড’ বলে। একে ফ্রিল্যান্সিং সেক্টরগুলোতে জব প্রোপোজাল ও বলা হয়।

যাই হোক, ক্লায়েন্টের সাথে আপনার যোগাযোগের প্রথম উপায় ‘বিড’। অর্থাৎ, আপনি আপনার দক্ষতা অনুযায়ী কাজ খুজে বের করে সেই কাজের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

But, আবেদনটি হতে হবে সাবলীল ও তথ্যবহুল।

খুব সংক্ষেপেও এই বিডিং করা যেতে পারে। তবে, অভিজ্ঞদের তৈরি নানা ফ্রিল্যান্সিং জব প্রোপোজাল গুগলে পেয়ে যাবেন।

নিয়মমতো বিড করলে কাজ পাওয়ার সম্ভাবনা অনেকাংশে বেড়ে যায়।

ফ্রিল্যান্স চাকরির আবেদনটি ফর্ম লেখার নিয়ম: ইংরেজিতে

 

১২. যত সম্ভব, দক্ষতা বৃদ্ধি করুন

 

আপনি যতো ভালোই প্রোফাইল তৈরি করুন না কেন, যতো পোর্টফোলিওই যুক্ত করুন না কেন আপনি যদি কাজ পাওয়ার পর আপনার কাজটি ভালোভাবে প্রদর্শনই না করতে পারেন, তাহলে আপনার ‘ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো’ কথাটির যৌক্তিকতা থাকলো না।

আর প্রথম থেকে একজন করে করে ক্লায়েন্ট আপনার কাছ থেকে নিরাশ হলে, আপনার পরবর্তী কাজ পাওয়াটা অনেকাংশেই অসম্ভব হয়ে যায়।

So, সবার আগে আপনার নির্ধারিত লক্ষ্যে পৌছানোর জন্য দক্ষতা বৃদ্ধি করুন। 

 

১৩. ধৈর্যের সাথে কাজ করুন। ফ্রিল্যান্সিং শিখুন

 

‘ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো ২০২২?’ কথাটি ভাবার আগে আপনাকে আরো বুঝতে হবে যে, ফ্রিল্যান্সিং সম্পূর্ণ ধৈর্যের একটি কাজ।

কেননা, বিড করবেন কাজ পাচ্ছেন না? ধৈর্যের সাথে লেগে থাকুন। এমনও অনেক ফ্রিল্যান্সার আছে, যারা সারারাত বসে থাকে ক্লায়েন্টের একটা রিপ্লাই পাওয়ার জন্য।

So, ধৈর্যহারা হবেন না। সবুর করেন, মেওয়া এমনিতেই ফলবে।

 

ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো pdf। ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো 2022

 

‘ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো?’ প্রশ্নটির উত্তর হয়তো ইতোমধ্যে আপনারা পেয়ে গেছেন। তারপরেও বলছি, ‘ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো pdf’ এর উত্তর বিশেষভাবে দেওয়ার কিছু নেই।

‘ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো pdf’ কিওয়ার্ডে অনেকেই দেখলাম গুগলে সার্চ করছেন। তাদের উদ্দেশ্যে বলি, আপনি ফ্রি কোর্সগুলো করে, ইউটিউবে ভিডিও দেখে বা ফ্রিল্যান্সিং এর বিভিন্ন বই পড়ে এর থেকে বেশি জ্ঞান অর্জন করতে পারনবেন।

তাই ফ্রিল্যান্সিং শিখতে pdf এর জন্য খোজাখুজি না করে, ভিডিও টিউটোরিয়ালগুলো দেখলে আশা করি ভালো ফল পাবেন। 😃

ব্লগিং শিখতে ক্লিক করুন: ব্লগিং করে টাকা আয় ২০২২। ব্লগিং ওয়েবসাইট

 

ফ্রিল্যান্সিং একাউন্ট কিভাবে খুলব?

 

ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো? প্রশ্নটির পরেই অনেকে ভাবেন ‘ফ্রিল্যান্সিং একাউন্ট কিভাবে খুলব?’

ফ্রিল্যান্সিং একাউন্ট খোলা খুবই সহজ। এর জন্য প্রয়োজন হবে আপনার জিমেইল একাউন্টটি।

But জিমেইল একাউন্ট নেই, এমন ব্যক্তি আমার পোস্টটি পড়ছেন – এটা হয়তো সম্বব না।😁

So প্রথমে ফ্রিল্যান্সিং সেক্টর নির্বাচন করুন। তারপর সাইন আপ এ গিয়ে নিজের নাম, জিমেইল একাউন্ট, পাসওয়ার্ড দিয়ে খুব সহজেই ফ্রিল্যান্সিং একাউন্ট খুলে ফেলুন।

 

ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো 2022। ফ্রিল্যান্সিং কি? ফ্রিল্যান্সিং শিখুন, ঘরে বসে ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো?
 
 

So শুরুর দিকের ফ্রিল্যান্সার হলে আপওয়ার্ক (upwork) কে নির্বাচন করতে পারেন। খুব বিশ্বস্ত একটি ফ্রিল্যান্সিং সাইট এটি। 

 

ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ সমূহ

 

ফ্রিল্যান্সিং ওর কাজ এর ক্ষেত্র অনেক। এর সাধারণ কিছু উদাহরণ হলো:

  • Copywriting
  • Social media
  • Marketing
  • Graphic design
  • Video editing

আমরা যদি শুধু আপওয়ার্ক এর কাজের ক্ষেত্রের দিকে লক্ষ্য করি, তাহলে দেখবো – কাজের সাব-সেক্টরেগুলো বাদ দিয়ে শুধু মেইন সেক্টরগুলো হলো:

  • Development & IT
  • Design & Creative
  • Finance & Accounting
  • Admin & Customer Support
  • Engineering & Architecture
  • Legal
  • Sales & Marketing
  • Writing & Translation

 

Also, এই মেইন সেক্টরগুলোর আওতায় রয়েছে অনেকগুলো করে সাব-সেক্টর।

তাহলে বুঝতেই পারছেন, ফ্রিল্যান্সিং এর কাজের ক্ষেত্র কতো বিশাল!

 

ফ্রিল্যান্স চাকরি

 

ফ্রিল্যান্স চাকরি হলো ফ্রিল্যান্সিং সাইটে নিজের দক্ষতা অনুযায়ী কাজ করে পারিশ্রমিক পাওয়া।

So, ফ্রিল্যান্সিংকেই ফ্রিল্যান্স চাকরি বলা হয়।

তথ্যপ্রযুক্তির এই যুগে অনেকেই অফিসে না গিয়ে ঘরে বসেই অফিসের কাজ করে ফেলছে। আবার, যাদেরকে আমরা ক্লায়েন্ট বলি, তাদের কাছে কাজটি আউটসোর্সিং।

আর ফ্রিল্যান্স চাকরিতে আপনাকে অফিসে গিয়ে CV জমা দিতে হয় না, কিংবা জব ইন্টারভিউ দিতে হয় না।

চাকরির আবেদনকে এখানে বলা হয় ‘বিড‘।

আরো জানুন: গেমস খেলে টাকা ইনকাম। মোবাইল দিয়ে আয়

 

ফ্রিল্যান্সিং ইনকাম। ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো 2022

 

বেশিরভাগ মানুষ ফ্রিল্যান্সিং করে মাসে প্রায় $1,000-$5,000 উপার্জন করার আশা করতে পারেন।

10% শীর্ষ ফ্রিল্যান্সাররা মাসে $10,000-$20,000 আয় করে এবং শীর্ষ 1% প্রায় $50,000+ মাসে উপার্জন করে। 

এই বিশাল ফ্রিল্যান্সিং অ্যাকাউন্টগুলোর বেশিরভাগই কোনো এজেন্সি, মানে তাদের আওতায় অনেক লোক কাজ করে৷

 

ফ্রিল্যান্সিং করে কত টাকা ইনকাম করা যায়?

 

  • লেখক: গড়ে, একজন ফ্রিল্যান্স লেখকে আয় করেন $30-40/ঘন্টা, যার বার্ষিক বেতন প্রায় $42,000 হতে পারে।
  • সম্পাদক: গড়ে, ফ্রিল্যান্স সম্পাদকরা $25-35/ঘন্টা আয় করেন, যার বার্ষিক বেতন প্রায় $40,000 হতে পারে।
  • প্রোগ্রামার: একাধিক প্রোগ্রামিং ভাষা জেনে, গড় ফ্রিল্যান্স প্রোগ্রামার $60-70/ঘন্টা আয় করে, যার বার্ষিক বেতন প্রায় $120,000 হতে পারে
  • সাধারণ ডেভেলপার: একজন ফ্রিল্যান্স ডেভেলপার প্রায় $50-60/ঘন্টা আয় করে থাকেন। যা বাৎসরিক $100,000 এর মতো হতে পারে।

 

ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন। ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো

 

আপনার হাতে থাকা মোবাইল ফোনেও আপিনি ফ্রিল্যান্সিং শুরু করতে পারেন।

But ফ্রিল্যান্সিং এ সফল হতে চাইলে আপনার একটি ল্যাপটপ বা কম্পিউটার থাকলে দেরি না করে আজকে থেকেই শুরু করতে পারেন।

So, ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য দক্ষতার প্রয়োজন।

রমজানের ক্যালেন্ডার ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন: রমজানের ক্যালেন্ডার ২০২২

 

শেষকথা:

 

সুতরাং, “ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো 2022। ফ্রিল্যান্সিং কি? ফ্রিল্যান্সিং শিখুন” পোস্টটি আজকের মতো এই পর্যন্তই।

So, ‘ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো‘ সম্পর্কিত সকল প্রশ্নের উত্তর আশা করি পেয়েছেন।

‘ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো’ বিষয়ে আরো একটি পোস্টে বিস্তারিত জানতে পারবেন। আসসালামু আলাইকুম।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button